মধুমালার বদলে গ্রেফতার মধুবালা

0
156
মধুমালার বদলে গ্রেফতার মধুবালা

ডেস্ক নিউজ: মধুমালা দাসকে ধরতে গিতে ভুল করে মধুবালা মণ্ডলকে ডিটেনশন ক্যাম্পে ঢুকিয়ে দিয়েছিল। নাগরিকত্বের এই বিড়ম্বনায় তিন বছর বন্দি থেকে মানসিক ও শারীরিকভাবে বিপর্যস্ত অসমের ৫৯ বছরের বৃদ্ধা। মুক্তির পর কী ভাবে জীবন কাটাবেন, রোজগার করবেন – কিছুই ভেবে কুল করতে পারছেন না। 

মুক্তির পর মধুবালা বললেন, ‘দিনমজুর হিসেবে খেটে রোজগার করতাম। লোকের বাড়িতে কাজ করতাম। এখন আমি মুক্তি তবে বন্দি হওয়ার আগে আমার যে শক্তি ছিল, এখন আর তা নেই। গত তিন বছরে আমার শরীর ভেঙে গিয়েছে। আমার ভাগ্যে কী আছে জানি না।’ 

২০১৬ সালে পরিচয় নিয়ে ভ্রান্তিকে জীবনটাই বদলে যায় মধুবালার। বিষ্ণুপুর গ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই গ্রামেরই মধুমালা দাস, যিনি বেশ কয়েক বছর আগেই মারা গিয়েছেন, তাঁকে ধরতে গিয়ে ভুল করে মধুবালাকে ধরে পুলিশ। মধুমালার স্বামী আর ছেলেও আর বেঁচে নেই। এরপর অভিযোগ দায়ের হলে ট্রাইবুনাল মধুবালাকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেয়। মামলা লড়তে তাঁকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন এক সমাজকর্মী। 

বিশেষভাবে সক্ষম মেয়েকে নিয়ে চিন্তিত মধুবালার প্রশ্ন, সরকার কীভাবে এর ক্ষতিপূরণ দেবে? সমাজকর্মী অজয় রায়ের কথায়, ‘কোনও কারণ ছাড়াই একজন ভারতীয় নাগরিককে ৩ বছর বন্দি করে রাখা হল। অবিলম্বে তাঁকে সাহায্যের প্রয়োজন।’ এই সময়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here