নান্দাইলে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা না মেনে কালির বাজারে খাজনা আদায় অব্যাহত

0
199

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার ১২নং জাহাঙ্গীরপুর ইউনিয়নের রায়পাশা কালির বাজার নিয়ে আদালতে মামলা দায়েরের পর বিজ্ঞ আদালত অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারী করলেও খাজনা আদায় অব্যাহত রয়েছে। জানাযায়, বাজারের জায়গা জমি নিয়ে শ্রী শ্রী কালীমাতা ঠাকুরানী মন্দির এর সেবাইত এবং সাধারণ সম্পাদক শ্রী প্রানতোষ বিশ্বাস (পরিতোষ) নান্দাইল সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মোকাদ্দমা নং ১৬৮/২০১৮ অন্য প্রকার মামলা দায়ের করার পর বিজ্ঞ আদালত বিগত ১৬ই মে/২০১৯ বাজারের ইজারা ডাকের উপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ জারি করেন। আদেশের কপি বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রাশসক (রাজস্ব) ময়মনসিংহ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা জাহাগীরপুর ইউনিয়ন বরাবর যথা সময়ে পাঠানোর পরেও বাজারের ইজারাদার মোঃ আবদুর রাশিদ মেম্বার তার দলবল নিয়ে আদালতের নিষেধাজ্ঞা না মেনে বাজারের টোল/খাজনা নিয়মিতভাবে আদায় করে যাচ্ছে। মামলার বাদী অভিযোগ করে জানান, বিষয়টি মৌখিক ও লিখিতভাবে নান্দাইলের সহকারী কমিশনার (ভূমি)কে অবহিত করা হলেও আজ পর্যন্ত টোল/খাজনা বন্ধ করার বিষয়ে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করছেন না। মামলার আরজি সূত্রে জানাযায়, অত্র বাজারের ১.৫২শতক ভূমি শ্রী শ্রী কালীমাতা ঠাকুরানী মন্দির এর দেবোত্তর সম্পত্তি। সরকার এই জায়গার উপর বাজারের ইজারা দিতে পারেন না। উক্ত বিষয়ে নান্দাইল উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহমুদা আক্তার জানান, মামলার প্রায়োজনীয় কাগজপত্র ও বিজ্ঞ আদালতের আদেশের কপি জিপি’র মতামত ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মতামতের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের মতামত পাবার পর পরবর্তী কার্য্যক্রম গ্রহন করা হবে। মামলার বাদী শ্রী পানতোষ বিশ্বাস (পরিতোষ) অত্র কালির বাজারের টোল/খাজনা আদায়ে বিজ্ঞ আদালতের নিষেধাজ্ঞার আদেশ অবিলম্বে বাস্তবায়ন করার জন্য সংশ্লিষ্ঠ প্রাশাসন বরাবর জোর দাবী জানিয়েছেন। বাজারের বর্তমান ইজারাদার আবদুর রাশিদ মেম্বার জানান, বাজার নিয়ে মামলা হয়েছে শুনেছি। আমাকে বিবাদী করা হয় নাই। প্রশাসন থেকে নিষেধ করলে আমি খাজনা আদায় করব না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here