গঙ্গাচড়ায় বাবার বিরুদ্ধে মেয়েকে হত্যার অভিযোগ

0
44


গঙ্গাচড়া (রংপুর) প্রতিনিধি:
রংপুরের গঙ্গাচড়ায় বাবার বিরুদ্ধে মেয়েকে লাটি দিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার নোহালী ইউনিয়নের বইরাতি সাঙ্গের বাজার এলাকায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ঘটনাটি ঘটেছে। আজ শুক্রবার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নোহালী ইউনিয়নের বইরাতি সাঙ্গের বাজার এলাকার মেহের আলীর ১ম স্ত্রী (তালাক প্রাপ্ত) মরিয়মের সাথে প্রায় ১৩ বছর থেকে আদালতে মামলা চলে আসছে। ১ম স্ত্রীকে তালাক দিয়ে মেহের আলী ২য় বিয়ে করে সংসার করে আসছে। মেহের আলীর মেয়ে ও ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী মোতমাইন্না বেগম ছোট থাকায় সে তার মা মরিয়মের কাছেই বড় হয়ে উঠে। ৭ম শ্রেণীতে পড়ার সময় সে তার বাবার কাছে চলে আসে এবং বাবার কাছে থেকে লেখাপড়া করে আসছে। মায়ের পক্ষে কথা বলায় বাবা ক্ষীপ্ত হয়ে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত অনুমান ৩টার দিকে মেয়ে মোতমাইন্নাকে মারপিট করলে তার মৃত্যু হয়। মারপিটে মেয়ের মৃত্যু ভীন্নখাতে নেওয়ার জন্য মেহের আলী লাশটি তার বাড়ির আঙ্গিনায় কামড়াঙ্গার গাছের ডালে গলায় ওরনা পেচিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। পরে সে প্রচার করে তার মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্বহত্যা করেছে। বিষয়টি এলাকার মানুষের মাঝে জানাজনি হলে মোতমাইন্নার মৃত্যু ঘটনা নিয়ে এসব তথ্য প্রকাশ হয়। মোতমাইন্নার মা মরিমের বলেন, আমার মেয়ে আমার পক্ষে স্বাক্ষী দেওয়ায় তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। সংবাদ পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) আবু তৈয়ব মোহাম্মদ আরিফ হোসেন, গঙ্গাচড়া মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সুশান্ত কুমার সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মৃত্যে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেন এবং মৃত্যের বাবা মেহের আলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here