খাগড়াছড়িতে জোড়া খুন: একজনকে মৃতুদন্ড ও দুইজনকে যাবজ্জীবন

0
115
জোড়া খুন: ডান দিক থেকে আসামী ছাবের আলীকে (মৃত্যুদণ্ড) শাহজাহান (নির্দোষ) মাহবুব আলী (যাবজ্জীবন)

গৃহবধূ মাজেদা বেগম ও ছয় মাসের পুত্র সন্তান রিদোয়ান আহম্মেদকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

আনোয়ার হোসেন : জেলার গুইমারা উপজেলার বড়পিলাকে পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যার দায়ে একজনকে মৃতুদন্ড ও দুইজনকে যাবজ্জীবন দিয়েছে জেলা ও দায়রা জজ আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় খাগড়াছড়ির জেলা ও দায়রা জজ রেজা মো. আলমগীর হাসান এই রায় প্রদান করেন।
জানা যায়, ২০১৬ সালের ২২ মার্চ রাতে গুইমারা উপজেলার বড়পিলাক এলাকায় পারিবারিক কলহের জেরে গৃহবধূ মাজেদা বেগম ও ছয় মাসের পুত্র সন্তান রিদোয়ান আহম্মেদকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে স্বামী মো. ছাবের আলী।

২০১৬ সালের ২৩ মার্চ গুইমারা থানায় নিহত গৃহবধুর বাবা শাহাবউদ্দিন বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলা নং ০৩, পরবর্তীতে এস.টি মামলা নং ১২৯/১৬ (জি.আর ৮৬/১৬), ২০১৬ সালের ২৯ আগস্ট এ মামলার চার্জশীট দাখিল করা হয়।

রাষ্ট্রপক্ষের ১৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যতে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় দন্ডবিধি ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় আসামী মো. ছাবের আলীকে মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।
এছাড়া দন্ডবিধি ৩৪ ধারায় সহযোগীতার দায়ে শ্বশুর মো. মাহবুব আলী ও শ্বাশুরী রেনু আরা বেগমকে যাবজ্জীবন ও ১০ হাজার টাকার অর্থদন্ড অনাদায়ে ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।
এই মামলার অপর আসামী মো. শাহজাহান নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় বেকসুর খালাস দেয় আদালত।
রায়ে সন্তোষ জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষ ও নিহতদের স্বজনরা।

আসামী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট মহিউদ্দিন কবির রায়ে অসস্তোষ জানিয়ে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছে দাবি করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here