ছাগলনাইয়ায় একটি বাড়ী একটি খামার অফিসে দূর্ধর্ষ চুরি

0
184


সেপাল নাথ, ছাগলনাইয়া : ছাগলনাইয়ায় একটি বাড়ী একটি খামার উপজেলা অফিসে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ২৬ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে কোন এক সময়ে।
একটি বাড়ী একটি খামার ছাগলনাইয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রফিক উদ্দিন জানান, আমরা প্রতিদিনের মত গতকাল ২৫ সেপ্টেম্বর বিকেলে অফিস বন্ধ করে সবাই চলে যাই। যথারীতি সময়ে অফিসের নৈশ প্রহরি সেলিনা আক্তার রাতে আসার কথা ছিল কিন্তু সে বাড়ী স্বামী আসার অজুহাতে কোন অনুমতি না নিয়ে রাতে অফিসে আসে নাই এবং আমাদের কোন কর্মকর্তা কর্মচারীকে অবহিত করেন নাই। ২৫ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত আমি অফিসার্স ক্লাবে ছিলাম। তারপর আমরা সবাই উক্ত ক্লাব টি ত্যাগ করে যার যার বাসায় ফিরে যাই। সকালে এসে দেখতে পাই যে, আমাদের অফিসের লোহার করিডোরটির রড়গুলো ভেঙ্গে চোরের দল অফিসে প্রবেশ করে। ৩টি রুমে থাকা ৩টি আলমারি, ১টি বোল্ড, ৪টি টেবিলেল টানা ড্রয়ার ১২টি ভেঙ্গে ফেলে চোরের দলের সদস্যরা। এতে করে অফিসে থাকা কোন প্রকার মোবাইল, ল্যাপটপ, টেপ প্যাড না নিয়ে গেলেও শুধুমাত্র নগদ ৪০হাজার টাকা নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে ছাগলনাইয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ছাগলনাইয়া উপজেলা আওয়ামিলগের সাধারণ সম্পাদক মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল মিডিয়াকে জানান, সরকারী টাকা পয়সাসহ মালামাল কেউ চুরি করে যদি মাটির ৪০ হাত গভীরে গিয়েও লুকিয়ে থাকে, তাহলে তাদেরকে ওইখান থেকে টেনে তুলে আনা হবে। কেউ ছাড় পাওয়ার কোন সুযোগ নেই। ইতি মধ্যে আমি ওসি সাহেব কে বলেছি, আপনি যাকে সন্দেহ হয়, তাকে গ্রেফতার করুন, কেউ তদবির করলে আমাকে জানাবেন। সরকারী টাকাগুলো উদ্ধার করে চোরদেরকে এমন সাজা দিবো, যাহাতে ছাগলনাইয়ার মাটিতে আর কোনদিন চুরির ঘটনা না ঘটে।
উক্ত ঘটনাটি শুনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া তাহের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং চুরির ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা বলে মিডিয়াকে জানান।
উক্ত ঘটনায় ছাগলনাইয়া থানার ইনচার্জ অফিসার মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ জানান, বিষয়টি তদন্ত চলছে। আমরা আশা করছি অল্প সময়ের মধ্যে চুরির ঘটনাটি মূল রহস্য বের হয়ে আসবে। সরকারী অফিসে চুরি কৃত টাকা কেউ হজম করতে পারবে না।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here