বান্দরবানে কমিউনিটি ক্লিনিক পরিচালনায় স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি প্রশিক্ষণ

0
67

মোহাম্মদ আলী,বান্দরবান প্রতিনিধি:
বর্তমান আওয়ামীল সরকারের আন্তরিকতায় পার্বত্য অঞ্চলে পূর্বের তুলনায় অনেকটা স্বাস্থ্য সেবা ও কমিউনিটি ক্লিনিকের সংখ্যা বেড়েছে মানুষ উন্নত স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছে। কমিউনিটি ক্লিনিক পরিচালনায় স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন এসব কথা বলেন। ২৯সেপ্টেম্বর রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় বান্দরবান উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যলয়ের সভা কক্ষে প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বান্দরবান সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের কর্মকর্তা ডাঃ ভানু মারমা এর সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন। প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো: তাজুরুল ইসলাম।
প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষার্নীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করেন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ ক্য থোয়াই প্রু প্রিন্স, সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র স্বাস্থ্য ও শিক্ষা কর্মকর্তা স্য সইচিং মারমা। প্রশিক্ষনে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাজু মং মারমা, ৫টংকাবতি ইউপি চেয়ারম্যান প্লোকান ¤্রাে, ৫টংকাবতি ইউপি সচিব মো: জাহাঙ্গীর হোসেন, ৫টংকাবতি ইউপি নব নির্বাচিত মেম্বার আফরোজা সুলতানা সুমি সহ অন্যান্য ইউপি সদস্যগন, বিভিন্ন মৌজার হেডম্যান গণ উপস্থিত ছিলেন। প্রশিক্ষনে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যলয়ের ক্যাশিয়ার রুপন কুমার বড়–য়া, তম্্েরাচিং, আন্না দাশ, স্যানেটারী পরিদর্শক মিতুন কুমার বড়–য়া প্রমুখ। প্রশিক্ষণ বাস্তবায়ন করেন বান্দরবান সদর উপজেলা স্বাস্থ ও পরিবার পরিক্লপনা বিভাগ। প্রশিক্ষণ আয়োজক কমিউনিটি বেইজ হেল্থ কেয়ার (সিবিএইচসি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, প্রশিক্ষণ সহযোগিতায় করেন জাপান ইন্টারন্যাাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি(জাইকা)।
বক্তরা বলেন, বর্তমান সরকার স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক গুরুত্ব দিয়ে স্বাস্থ্য সেবা উন্নত করেছে, বিশেষ করে পার্বত্য অঞ্চলে স্বাস্থ্য সেবা পূর্বের তুলনাই বর্তমানে অনেক উন্নত হয়েছে। এখন আর কাউকে বিনা চিকিৎসায় অকালে মৃত্যু বরণ করতে হয় না, দেশের সকল উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বা কমিউনিটি ক্লিনিকে বিশেষ করে গর্ভবতি নারীদের চিকিৎস্যা সেবা ও বিভিন্ন রকম পরামর্শ প্রদান করে থাকে, যার ফলে নারী মৃত্যুর হার ও শিশু মৃত্যুর হার অনেক কমে এসেছে। পরে উপস্থিত সবাইকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানিয়ে সভাপতি সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের কর্মকর্তা ডাঃ ভানু মারমা প্রশিক্ষণ সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here