বলিভিয়ায় নির্বাচনে মোরালেস জয়ী

0
43

বলিভিয়ার নির্বাচনে ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসকেই জয়ী ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচনী ট্রাইব্যুনাল। নির্বাচনের প্রথম রাউন্ডের ভোট গণনা নিয়ে বিরোধীদের ব্যাপক আপত্তির মুখেই গত বৃহস্পতিবার এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

বলিভিয়ার নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালের (টিএসই) ওয়েবসাইটে গণনা করা ৯৯ দশমিক ৯ শতাংশ ভোটের মধ্যে মোরালেস ৪৭ দশমিক ১ শতাংশ পেয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কার্লোস মেসা পেয়েছেন ৩৬ দশমিক ৫১ শতাংশ ভোট। দেশটিতে দ্বিতীয় রাউন্ডের ভোট এড়াতে প্রথম রাউন্ডে সবচেয়ে বেশি ভোট পাওয়া প্রার্থীকে নিকটবর্তী প্রতিদ্বন্দ্বীর তুলনায় ন্যুনতম ১০ শতাংশ ভোটে এগিয়ে থাকতে হয়।

এর আগে ৯৯ শতাংশ ভোট গণনা শেষে মোরালেস ৪৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ এবং মেসা ৩৬ দশমিক ৬০ শতাংশ ভোট পেয়েছিলেন বলে জানানো হয়েছিল।

মোরালেস সে সময় বলেছিলেন, বাকি ১ শতাংশের গণনা শেষে যদি দুই প্রার্থীর ব্যবধান ১০ শতাংশের নিচে নেমে যায়, তাহলে তিনি ফল মেনে ১৫ ডিসেম্বরের দ্বিতীয় রাউন্ড ভোটে অংশ নেবেন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ‘নির্বাচনের ফল চুরির’ চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করে বিরোধীরা দেশে একটি অভ্যুত্থানের চেষ্টা সংঘটিত করতে পারে বলে সমর্থকদের সতর্ক থাকতেও বলেছিলেন তিনি।

বিরোধী প্রার্থী মেসা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল গণনাকে ‘বড়ো ধরনের জালিয়াতি’ অ্যাখ্যা দিয়ে মোরালেস অবৈধভাবে ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখতে চাইছেন বলে অভিযোগ করেছেন।

অর্গানাইজেশন অব আমেরিকান স্টেটসের (ওএএস) পর্যবেক্ষকেরাও বলিভিয়ার এবারের নির্বাচনের ফল নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন। লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে প্রেসিডেন্ট থাকার রেকর্ডধারী মোরালেস এ নিয়ে টানা চতুর্থ মেয়াদে রাষ্ট্রের শীর্ষ পদে আসীন হলেন।

এ দফায় জয়ী হওয়ায় তার মেয়াদ ২০২৫ সাল পর্যন্ত বিস্তৃত হলো। মোরালেসকে জয়ী ঘোষণা করার পর মেসা দ্বিতীয় রাউন্ড ভোটের দাবি জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া তার দাবিতে সমর্থন দিয়েছে।

রবিবার ভোট গ্রহণ শেষে দেশটির সুপ্রিম ইলেকটোরাল ট্রাইব্যুনাল দ্রুতগতিতে ভোটের ফল জানানো শুরু করে; প্রথম দিকে মোরালেস ও মেসার ব্যবধান কম থাকায় দ্বিতীয় রাউন্ড ভোটের আশায় বিরোধী শিবির উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়ে।

ট্রাইব্যুনালের ওয়েবসাইটে পরে ভোটের দ্রুত ফল দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়। সোমবার সন্ধ্যায় ওয়েবসাইটে দেওয়া আপডেটে মোরালেসকে তার প্রতিদ্বন্দ্বীর তুলনায় ১০ দশমিক ১২ শতাংশ ভোটে এগিয়ে থাকতে দেখা যায়। ফল ঘোষণায় এই ‘লুকোচুরিতে’ উদ্বেগ জানান ওএএসের পর্যবেক্ষকেরা।

ইত্তেফাক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here