পরশুরামে কাউতলীতে আ’লীগ নেতার পিটুনি খেয়ে অভিমান করে আত্মহত্যা

0
45

পরশুরাম (ফেনী) থেকে :
পরশুরাম উপজেলার মির্জানগর ইউনিযনের ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা ফিরোজের হাতে মার খেয়ে অপমানে আতœহত্যা করেছে আবু আহাম্মদ (৫০) নামের এক কৃষক। নিহতের বাড়ী একই ওয়ার্ডের কাউতলী গ্রামে সে মৃত রাজা মিয়ার ছেলে। সোমবার রাতে কাউতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্বার করে পরদিন মঙ্গলবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়ে দেয়।
এব্যাপারে নিহতের স্ত্রী রহিমা আক্তার বাদী হয়ে মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) পরশুরাম থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন। নিহতের স্ত্রী রহিমা আক্তার অভিযোগ করেন সোমবার রাতে ধান খেতে ঔষধ দেয়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আহম্মদ তার স্বামী আবু আহাম্মদকে মারধর করে। এক পর্যায়ে আবু আহাম্মদ সেখান থেকে পালিয়ে গেলে আওয়ামীলীগে নেতা ফিরোজ আবু আহাম্মদের স্ত্রী রহিমা আক্তারের মোবাইল ফোনে কল দিয়ে আবু আহাম্মদকে অফিসে পাঠানোর জন্য হুমকি ধমকি দেয়।

আবু আহাম্মদ বাড়ীতে নেই জানালে লোকজন পাঠিয়ে তাকে বাড়ী থেকে তুলে আনবে বলে হুমকী দেয় এবং অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ কলে। রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত আওয়ামীলীগ নেতা ফিরোজ, আবু আহাম্মদ এর স্ত্রী রহিমা আক্তারের নাম্বারে ১০/১২ বার কল দিয়ে হুমকি দিয়েছে বলে তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগ দিয়েছে। ঘটনার পর রাত ১০টা দিকে আবু আহাম্মদের লাশ বাড়ীর পিছনে একটি গাছে সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে লোকজন পরশুরাম থানায় পুলিশকে খরব দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ নিয়ে এসে মর্মে প্রেরণ করা। এ ব্যাপারে পরশুরাম মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান কে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানায় লাশ ময়না তদন্তের জন্য ফেনী সদরে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে এব্যাপারে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here