নালিতাবাড়ীতে পঞ্চম শ্রেণীর স্কুল ছাত্র মরদেহ উদ্ধার

0
50

জাফর আহম্মেদ, নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি : নিখোঁজের ০৫ দিন পর শাহীন স্কুলের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র আকিব ইসলাম খান অমির (১২) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত অমি শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী শহরের কালিনগর বাইপাস এলাকার আব্দুর রউফ খানের ছেলে।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে ,গত ২রা নভেম্বর শনিবার বিকালে বাড়ির কাছেই নাজমুল স¥ৃতি সরকারী কলেজ মাঠে খেলার সাথীদের সাথে খেলতে যায় অমি। বিকাল চারটার দিকে খেলার মাঠ থেকে বাসায় যাওয়ার কথা বলে সে চলে যায়। এরপর থেকে তাকে আর পাওয়া যাচ্ছিল না। ওই সময়ে তার পরনে ছিল লাল রঙের প্যান্ট ও গায়ে হলুদ রঙের গেঞ্জি ছিল। এদিকে নিখোঁজের পরপরই অমির সন্ধান চেয়ে নালিতাবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে মাইকিং করা হয়। থানায় করা হয় সাধারণ ডায়েরি। ফেসবুকে নানা মাধ্যমে অমির সন্ধান অব্যাহত থাকলেও গত ৪ দিনে তার সন্ধান পায়নি পুলিশ। এক পর্যায়ে অমির পরিবার থেকে বেশ কিছু তথ্য দিলে পুলিশকে গত মঙ্গলবার রাতে কালিনগর এলাকা থেকে সন্দেহ হিসাবে বিল্লাল হোসেন এর ছেলে রাকিব(১৯) ভাগ্নে জসিম ও সিয়াম নামে তিনজন কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। পরে তাদের দেওয়া তথ্য মতে আজ বুধবার বেলা বারটার দিকে অমির বাড়ির কাছাকাছি সাবেক কাউন্সিলর বকুলের ধানক্ষেত থেকে অর্ধ গলিত বস্তাবন্দি অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে, নিখোঁজের পর অমিকে খুঁজে পেতে বিলম্ব হওয়াই অমির পরিবারও এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ফেসবুক সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে এবং অমি হত্যাকারীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী উঠেছে।
উল্লেখ্য যে,এর আগে অমির বড় ভাই গোলাম রাব্বি খান জেনিথকে ২০১৬ সালের ০৪ই মার্চ ক্রিকেট খেলা নিয়ে দ্বন্ধে ক্ষুর দিয়ে মারাতœক ভাবে জখম করে একই এলাকার রাকিব(বর্তমানে আটক) ও হৃদয় নামে দুই যুবক। পরবর্তীতে ওই ঘটনায় এলাকাবাসীর আয়োজনে অপরাধীদের শাস্তির দাবীতে মানব বন্ধন করা হয়। জেনিথ বর্তমানে শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছে। ক্ষরঘাতের ঘটনায় চার্জশীট মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে যে , পূর্বের ঘটনার জেরে অমিকে অপহরণের পর পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে গুমের চেষ্টা করা হয়েছে।
এই বিষয়ে নালিতাবাড়ীর থানার কর্মরত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই আনসার আলীর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি তিন জনকে আটক ও অমির মরদেহের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন , বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here