গুইমারা উপজেলার ৫ম বর্ষপূর্তি উৎযাপিত , ভবন সংকটে ব্যহত হচ্ছে উপজেলা প্রশাসনের কার্যক্রম

0
87

গুইমারা উপজেলার ৫ম বর্ষপূর্তি উৎযাপিত , ভবন সংকটে ব্যহত হচ্ছে উপজেলা প্রশাসনের কার্যক্রম

আনোয়ার হোসেন:
গুইমারা উপজেলার ৫ম বর্ষপূর্তি উৎযাপন উপলক্ষে শনিবার সকালে গুইমারা মডেল হাই স্কুল থেকে আনন্দ শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়।
উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা তুষার আহমেদ এর সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন গুইমারা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেমং মারমা।
প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে ঊপস্থিত ছিলেন সিন্দুকছড়ি জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিস ঝর্না ত্রিপুরা, গুইমারা থানা ইনচার্জ বিদ্যুত বড়ুয়াসহ প্রমূখ।
প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ২ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সরকারের প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সম্পর্কিত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) ১০৯তম সভায় খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার হাফছড়ি, মহালছড়ির সিন্দুকছড়ি ও মাটিরাঙ্গার গুইমারা ইউনিয়নকে নিয়ে ‘গুইমারা উপজেলা’ ঘোষণা করা হয়।
এরপর ৪ সেপ্টেম্বর গেজেট প্রকাশ হওয়ার পর একই বছরের ৩০ নভেম্বর গুইমারা ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনে গুইমারা উপজেলা পরিষদের প্রশাসনিক কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন খাগড়াছড়ির সাংসদ কুজেন্দ্রলাল ত্রিপুরা।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে গুইমারাকে উপজেলা হিসেবে ঘোষনা দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, কাউকে পিছনে ফেলে নয়, সবাইকে সাথে নিয়েই উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে চায় সরকার। সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।
৫ বছর বিগত হলখাগড়াছড়ির গুইমারাকে উপজেলা ঘোষণা করা হয়েছে। উপজেলা ঘোষণার এতগুলো বছর পেরিয়ে গেলেও নির্মিত হয়নি প্রয়োজনীয় অবকাঠামো। ভবন বা অবকাঠামোর সংকটের কারণে উপজেলা প্রশাসনের অফিস চলছে গুইমারা সদর ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে। কার্যত উপজেলা হওয়ার পরও কাক্ষিত সেবা পাচ্ছেন না উপজেলার বাসিন্দারা। প্রশাসনিক মূল ভবন নির্মাণের জন্য জমি অধিগ্রহণের প্রাথমিক কাজ চলছে।
গুইমারা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমা জানান, গুইমারাবাসীর কথা ভেবেই তিনি নতুন ইউপি ভবনের কার্যালয়টি উপজেলা প্রশাসনের জন্য ছেড়ে দিয়েছেন। আগের জরাজীর্ণ কার্যালয়ে তিনি নিজের কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।
জানা যায়, গুইমারা ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে সচিবের কক্ষে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদদফতরের অফিস। পাশের আরেকটি কক্ষে উপজেলা মৎস্য অফিসের কার্যক্রম। কমপ্লেক্সের একাধিক কক্ষে উপজেলা নির্বাচন অফিস, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ, দুর্যোগ ও ত্রাণ অধিদফতরের আওতায় প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার দফতর রয়েছে। এছাড়া একটি বাড়ি একটি খামার, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস, উপজেলা আনসার ও ভিডিপি অফিস ভাড়ায় ভবন নিয়ে কার্যক্রম চালাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here