‘গেন্দা ফুল’ এ বাঙালি নারী এবং সংস্কৃতিকে অসম্মান

0
105

আবারো বিপাকে বাদশার ‘গেন্দা ফুল’। এই মিউজিক ভিডিওতে বঙ্গ নারী ও সংস্কৃতিকে অসম্মান করা হয়েছে। এই কারণে বাদশাসহ অ্যালবামের প্রযোজক, পরিচালক ও খ্যাতনামা একটি মিউজিক কোম্পানির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করল স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আত্মদীপ। 

এফআইআরের কপি

এফআইআরের কপি

শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার বীজপুর থানায় এই অভিযোগ করে ‘আত্মদীপ’। সংস্থাটির সভাপতি প্রসূন মৈত্র জানান, ওরা যে গেন্দাফুল নাম দিয়ে ভিডিও অ্যালবাম করেছে, তাতে ধুনুচি নাচ ও বাঙালি মহিলাদের খুব অশ্লীলভাবে তুলে ধরা হয়েছে। এই বিষয়ে আমি প্রথমে বাদশাকে টুইটারে সতর্ক করেছিলাম। বলেছিলাম, আপনাকে ক্ষমা চাইতে হবে, না হলে আপনার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেব। তবে বাদশা এখনো পর্যন্ত ক্ষমা চাননি। তাই আমাদের পক্ষ থেকে শনিবার থানায় এফআইআর করা হয়েছে। এর জন্য আমরা আইনি পদক্ষেপ যা নেয়ার নেব।

‘আত্মদীপ’ নামক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাটি মূলত মানবাধিকার নিয়ে কাজ করে বলে জানান সংস্থার সভাপতি প্রসূন মৈত্র। 

প্রসঙ্গত, বাদশার গেন্দাফুল গানটি মুক্তি পাওয়ার পরই বিতর্কের শিরোনামে ওঠে। গানটিতে বাঙালি লোকশিল্পী রতন কাহারের ‘বড়লোকের বিটি লো’ গানের লাইন ব্যবহার করা হলেও তার নাম দেয়া হয়নি বলে সরব হন অনেকেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here